WiFi নেটওয়ার্ক কি সত্যি হ্যাক করা সম্ভব?? বিস্তারিত…

ইন্টারনেট ব্যবহারের সবচাইতে জনপ্রিয় মাধ্যম হল WiFi নেটওয়ার্ক। প্রায় সব WiFi নেটওয়ার্কই পাসওয়ার্ড প্রোটেকটেড থাকে। WiFi পাসওয়ার্ড হ্যাক করার জন্য অনেকে প্রায়ই Google বা Youtube এ সার্চ দিয়ে থাকে। How to hack WiFi এই কোয়েরিটি মাসে ১ লাক্ষেরও বেশি বার Google এ সার্চ হয়। এই সার্চের পরিমান দেখেই ধারনা করা যায় অনেকেই WiFi হ্যাক করতে ইচ্ছুক বা হ্যাক করার চেষ্টা চালাচ্ছে। এখন প্রশ্ন হল WiFi নেটওয়ার্ক কি সত্যি হ্যাক করা সম্ভব? সম্ভব হলে তা কিভাবে সম্ভব আর সম্ভব না হলে কেন সম্ভব না? এই প্রশ্ন গুলো সবার মনেই আসে। তো চলুন জেনে নেই এ সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য।

WiFi হ্যাক করা যায় কি না, এর ডিরেক্ট হ্যা বা না কোন উত্তর দেওয়া সম্ভব হয় না। WiFi হ্যাকিং সম্পর্কে জানার আগে আমাদের জানতে হবে WiFi সিকিউরিটি গুলো সম্পর্কে। WiFi পাসওয়ার্ডে মূলত তিন ধরনের ইনক্রিপশন ব্যবহার করা হয়।
১। WEP
২। WPA
৩। WPA2

আজ থেকে প্রায় ১৪-১৫ বছর পূর্বে সর্বপ্রথম WEP সিকিউরিটি চালু করা হয়। এটির ইনক্রিপশন সিস্টেম ছিল মাত্র 64 বিটের। যার ফলে এই সিকিউরিটি খুব সহজেই হ্যাক করা হম্ভব ছিল। ২০০৬ সালে WPA নামে একটি নতুন WiFi সিকিউরিটি চালু করা হয়। WEP এর চাইতে WPA ছিল বেশি শক্তিশালী। তারপর WPA2 নামে আরেকটি নতুন সিকিউরিটি সিস্টেম অবমুক্ত হয়। এটি পূর্বের সকল সিকিউরিটি গুলো থেকে অধিক উন্নত এবং ইনক্রিপশন স্ট্যান্ডার্ডও তুলনামূলক জটিল। বর্তমানে WPA2 এর সর্বশেষ সংস্করন WPA2-PSK প্রায় সব WiFi রাউটারের ব্যবহার করা হয়, যা হ্যাকিং প্রায় অসম্ভব।

এখন মূল কথায় আসি। WiFi হ্যাক করা সম্ভব। কিন্তু যেসকল WiFi নেটওয়ার্ক এখনও WEP ইনক্রিপশন ব্যবহার করছে সেইগুলো হ্যাক করা যেতে পারে। কিন্তু WPA বা WPA2 ইনক্রিপশন ব্যবহৃত WiFi নেটওয়ার্ক গুলো হ্যাক করা প্রায় অসম্ভব। তবে বর্তমানে প্রতিটা রাউটারের WPS নামের একটি অপশন ডিফল্ট ভাবে চালু করা থাকে। WPS হল পাসওয়ার্ডের একটি বিকল্প পদ্ধতি। আপনি পাসওয়ার্ড ছাড়াও রাউটারের WPS Key দিয়ে WiFi এ যুক্ত হতে পারবেন। এই Key ৭-৮ ডিজিটের হয়ে থাকে। অনেক মোবাইল App আছে যা সম্ভাব্য WPS Key গুলো দিয়ে WiFi এ কানেক্ট করার চেষ্টা করে। যদি ভাগ্য ভাল হয় তাহলে কানেক্ট হয়ে যেতে পারে। কিন্তু এর সম্ভাবনা মাত্র ৫% এর ও কম। ব্রুটফোর্স এ্যটাক দিয়েও এই Key খুজে বের করা সম্ভব। কিন্তু এটি অনেক সময় সাপেক্ষ। ৭-৮ অংক বিশিষ্ট সকল সংখ্যা এক এক করে ট্রাই করবে। কম্পিউটার দিয়েও এই পদ্ধতিতে পাসওয়ার্ড খুজে বের করতে ১/২ বছর সময় লেগে যেতে পারে।

WPS বাটন নামে রাউটারে একটি বাটন থাকে। এই বাটনে চাপ দিলে কিছু সময়ের জন্য পাসওয়ার্ড ছাড়াই WiFi এ কানেক্ট হওয়া যায়। যদি আপনার অজান্তেই কেউ এই বাটনে চাপ দেয় তাহলে সে আপনার WiFi কানেক্ট হতে পাববে খুব সহজেই।

নিজের রাউটার কিভাবে সিকিউর করবেন?

  • রাউটারের ফার্মওয়্যার সব সময় আপডেট রাখবেন।
  • সব সময় লেটেস্ট সিকিউরিটি ব্যবহার করবেন। বর্তমানে লেটেস্ট সিকিউরিটি হল WPA2-PSK
  • WPS অপশনটি রাউটারের এডমিন প্যানেল থেকে বন্ধ করে রাখবেন।

WPS

  • পাসওয়ার্ড ১০-১৫ অক্ষরের রাখবেন। বর্ণমালা, নম্বর ও স্পেশাল ক্যারেক্টার এর সমন্বয় পাসওয়ার্ড কে আরও শক্তিশালী করে।
  • এমন পাসওয়ার্ড রাখবেন না যেটা অন্য কেউ সহজে অনুমান করতে পারে।

তো আজকের মত এই পর্যন্তই। এক কথায় বলতে গেলে WPA বা WPA2 সিকিউরিটি দেওয়া থাকলে সেই WiFi হ্যাক হওয়ার সম্ভাবনা নেই বললেই চলে। সবাই ভাল থাকবেন সুস্থ থাকবেন। দেখা হবে অন্য কোন পোস্টে অন্য কোন টপিক নিয়ে।

আল্লাহ হাফেজ…

Share This

You May Also Like

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *