Wifi কি এবং ওয়াইফাই এর বৈশিষ্ট, সুবিধা-অসুবিধা।

বর্তমান তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি এই যুগে WiFi একটি খুব পরিচিত শব্দ। ওয়াইফাই শব্দটির সাথে আমরা সবাই কম বেশি সবাই পরিচিত। আমরা বিভিন্ন ভাবে WiFi ব্যবহার করে থাকলেও অনেকেই জানি না WiFi কি । তাহলে চলুন আজকের আর্টিকেল থেকে জেনে নেই WiFi কি । WiFi কি এর সাথে আরও জেনে নেই ওয়াইফাই এর বৈশিষ্ট, সুবিধা, অসুবিধা এবং ব্যবহার।

WiFi কি ???

WiFi (ওয়াইফাই) এর পূর্ণনাম হচ্ছে- Wireless Fidelity । WiFi (ওয়াইফাই) হচ্ছে ওয়ারলেস লোকাল এরিয়া নেটওয়ার্ক ব্যবস্থা যার সাহায্যে বহনযোগ্য কম্পিউটারের যন্ত্রপাতির সাথে সহজে ইন্টারনেট সংযুক্ত করা যায়। ওয়াইফাই যোগাযোগ ব্যবস্থায় উচ্চ ফ্রিকোয়েন্সী রেডিও ওয়েব ব্যবহার করা হয়।

ওয়াইফাই হচ্ছে Wi-Fi Alliance এর বাণিজ্যক চিহ্ন অথবা ট্রেডমার্ক। IEE802.11 স্ট্যান্ডার্ড তারহীন স্থানীয় এলাকা নেটওয়ার্ক বা Wireless Local Area Network (WLAN) ডিভাইস ব্র্যান্ড করার জন্য ওয়াইফাই উৎপাদনকারীরা এই বাণিজ্যক চিহ্ন ব্যবহার করে। এখন পর্যন্ত সবথেকে বেশি ব্যবহৃত WLAN ক্লাশ হল IEE802.11। IEE802.11 এর প্রতিশব্দ হিসেবে ওয়াইফাই শব্দটি প্রায়ই ব্যবহৃত হয়।

Wi-Fi Alliance হচ্ছে একটি অলাভজনক প্রতিষ্ঠান যা ওয়াইফাই প্রযুক্তি উন্নীত করে এবং ওয়াইফাই পণ্য নিশ্চিত করে। ওয়াইফাই সাধারণত সকল ধরণের ল্যাপটপ, পেরিফেরাল ডিভাইস, প্রিন্টার, স্মার্ট ফোন, MP3 প্লেয়ার, ভিডিও গেম Console এবং ব্যক্তিগত কম্পিউটারে ব্যবহার করা যায়।

WiFi এর বৈশিষ্ট

  • ওয়াই-ফাই যোগাযোগ ব্যবস্থায় উচ্চ ফ্রিকোয়েন্সী রেডিও ওয়েব ব্যবহার করা হয়।
  • WiFi ব্যবহার করে একই সাথে একাধিক কম্পিউটারে ইন্টারনেট সংযোগ দেয়া যায়।
  • এটি ওয়ারলেস Local Area Network IEE802.11 এর জন্য (Institute of Electrical and Eletromics Enginners) প্রণীত স্ট্যান্ডার্ড।
  • কর্ডলেস টেলিফোনের ন্যায় বিভিন্ন পোর্টেবল ডিভাইস ও  ফিক্সড ডিভাইসের নেটওয়ার্কের ক্ষেত্রে এটি ব্যবহৃত হয়।
  • এর কাভারেজ এরিয়া একটি কক্ষ, একটি ভবন কিংবা কয়েক কিলোমিটার এলাকা জুড়ে হতে পারে।
  • হটস্পট গুলোতে এটি ব্যবহার করা যায় এবং এর কাভারেজ খুব বেশি এলাকায় পাওয়া যায় না।
  • ওয়াই-ফাই পণ্যসমূহ ওয়াইফাই এলায়েন্স কর্তৃক সনদ প্রাপ্ত।

WiFi এর সুবিধা

  • WiFi প্রযুক্তি ব্যবহার করে একই সাথে একাধিক কম্পিউটারে ইন্টারনেট সংযোগ দেয়া যায়।
  • WiFi হচ্ছে ওয়ারলেস লোকাল এরিয়া নেটওয়ার্ক ব্যবস্থা।
  • এর সাহায্যে ইন্টারনেট অ্যাক্সেস করা যায়।
  • সীমিত এরিয়ার মধ্যে WiFi প্রযুক্তি ব্যবহার করা সহজ।
  • ওয়াইফাই লোকাল এরিয়া নেটওয়ার্কের তুলনায় সস্তা।

WiFi এর অসুবিধা

  • ওয়াইফাই ব্যবহারের সবচেয়ে বড় আসুবিধা হলো কেবল হটস্পটগুলোতে এটি ব্যবহার করা হয়।
  • এর কাভারেজ খুব বেশি এলাকায় পাওয়া যায় না।
  • ওয়াইফাই প্রযুক্তির ডাটা চলাচলের গতি খুব একটা বেশি নয়।
  • নিরাপত্তা ব্যবস্থা তুলনামূলকভাবে দুর্বল।

WiFi এর ব্যবহার

  • সীমিত এরিয়ার মধ্যে WiFi প্রযুক্তি ব্যবহার করা সহজ।
  • শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছাত্র-ছাত্রীদের ব্যবহারের সুবিধার্থে WiFi প্রযুক্তি ব্যবহার করা যায়।
  • বিমানবন্দর, হটেল, রেস্তোরাতে WiFi প্রযুক্তির সেবা প্রদান করা যায়।
  • ওয়াইফাই র‍য়েছে এরকম সকল ধরনের ইলেক্ট্রনিক ডিভাইসে ওয়াইফাই খুব সহযে ব্যবহার করা যায়।
  • ওয়াইফাই ব্যবহার করে বর্তমানে এক সাথে কয়েকজন মিলে একই ভিডিও গেম খেলা যায়।

আজকের আর্টিকেলটি এপর্যন্তই। Wifi কি এবং Wifi এর বৈশিষ্ট, সুবিধা-অসুবিধা এ বিষয়গুলো নিয়ে কোন প্রশ্ন থাকলে নিচের কমেন্ট বক্সে করতে পারেন। পরবর্তীতে WiFi সৃষ্টির ইতিহাস সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হবে। সে পর্যন্ত সবাই ভালো থাকবেন সুস্থ থাকবেন এবং TechBartaBD এর সাথেই থাকবেন।

আল্লাহ্‌ হাফেজ…

Share This

You May Also Like

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *